বিজ্ঞানের খবর: প্লাস্টিক সমস্যার সমাধান— ব্যাক্টেরিয়ার মাধ্যমে প্লাস্টিককে ভ্যানিলিন-এ রূপান্তর

প্রিয়জনদের শেয়ার করুন
153 বার লেখাটি পঠিত হয়েছে ~~~

খাদ্যরসিক, বিশেষ করে আইসক্রিমপ্রেমীদের কাছে ভ্যানিলা অতি পরিচিত ও সুস্বাদু এক নাম। ভ্যানিলার স্বাদ ও গন্ধ বেশ বিখ্যাত। আর ভ্যানিলার এই স্বাদ ও গন্ধের জন্য দায়ী ভ্যানিলিন নামে এক যৌগ। ভ্যানিলা মটরশুঁটির প্রাথমিক উপাদান এটি। আর ভ্যানিলিনকে নিয়ে এত কথা বলার কারন হলো যে, এই ভ্যানিলিনকে কেন্দ্র করেই পৃথিবীতে প্রায় নিঃশব্দ এক বিপ্লব ঘটে গেছে।

বর্তমান পৃথিবীতে প্লাস্টিকের ব্যবহার উত্তরোত্তর বাড়ছে। সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর থেকে রাতে ঘুমাতে যাবার আগে অব্দি প্লাস্টিক জিনিসটা আমাদের জীবনের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে গেছে। ফলে পরিবেশে প্লাস্টিক জমাও হচ্ছে প্রচুর আর বর্তমানে এটি একটা বিরাট সমস্যারও কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

প্লাস্টিকের মূল উপাদান হলো পলিথিলিন টেরেফথ্যালেট (যা সংক্ষেপে PET নামে পরিচিত)। PET ওজনে খুবই হাল্কা কিন্তু প্রচন্ড মজবুত হয়। এটি মূলত বিভিন্ন অ-পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তির উৎস যেমন তেল ও গ্যাস থেকে তৈরি হয় এবং বিভিন্ন প্যাকেটজাত খাবার, জলের বোতল ইত্যাদি তৈরিতে ব্যবহৃত হয়।

আমরা যেভাবে প্লাস্টিক ব্যবহার করছি তেমনি নিত্যদিন প্লাস্টিক জমা হবার কারণে জেরবারও হয়ে চলেছি; তাই এই জমা হওয়া প্লাস্টিক(PET) সমস্যার একটা আশু সমাধান প্রয়োজন, যাতে এই PET-এর পুনর্নবীকরণ করা সম্ভব হয়।

বর্তমানে পৃথিবীতে প্রতি বছর আনুমানিক ৫০ মিলিয়ন টন PET বর্জ্য উৎপন্ন হয়, ফলস্বরূপ অর্থনীতি ও পরিবেশে অত্যন্ত খারাপ প্রভাব পড়ে। PET এর পুনর্নবীকরণ করা সম্ভব, কিন্তু যে সমস্ত পদ্ধতিগুলো এখন ব্যবহৃত হয় সেগুলির ফলে সুরাহা তো হয়ই না, বরং আরও এমন কিছু বর্জ্য তৈরি হয় যার ফলে  বিশ্বব্যাপী দূষণ আরও বেড়ে যায়।

আর এই গভীর সমস্যার সমাধান করার জন্য এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা গবেষণাগারে বিশেষ প্রযুক্তির মাধ্যমে ই কোলি (E. Coli) -এর এমন একটি স্ট্রেন বানিয়েছেন, যেটি ব্যবহার করলে PET এর একটি উপাদান টেরেফথ্যালিক অ্যাসিডকে বিভিন্ন রাসায়নিক বিক্রিয়ার মাধ্যমে ভ্যানিলিনে রূপান্তরণ করা সম্ভব।

BBRSC Discovery Fellowship and a UKRI Future Leaders Fellowship -এর ফান্ডে হওয়া এই গবেষণাটির গবেষণাপত্র প্রথম প্রকাশিত হয় Green Chemistry নামক এক জার্নালে।

বিজ্ঞানীরা হাতে কলমে পরীক্ষার মাধ্যমে দেখিয়েও দিয়েছেন যে কীভাবে একটি ব্যবহৃত প্লাস্টিকের বোতলকে ই কোলি -এর ওই বিশেষ স্ট্রেনটি ভ্যানিলিন-এ পরিণত করছে।

বিজ্ঞানীরা হাতে কলমে পরীক্ষার মাধ্যমে দেখিয়েও দিয়েছেন যে কীভাবে একটি ব্যবহৃত প্লাস্টিকের বোতলকে ই কোলি -এর ওই বিশেষ স্ট্রেনটি ভ্যানিলিন-এ পরিণত করছে। যদিও এ নিয়ে ভবিষ্যতে আরও অনেক পরীক্ষা নিরীক্ষার প্রয়োজন।

খাদ্য ও প্রসাধন শিল্পের জগতে ভ্যানিলিন খুবই প্রচলিত একটা নাম। এছাড়া এটি বিভিন্ন আগাছানাশক(herbicides), অ্যান্টি ফোমিং এজেন্টস (anti foaming agents) ও cleaning agents তৈরিতেও ব্যবহৃত হয়। ভ্যানিলিনের এত চাহিদার কারণে ২০১৮ সালে ৩৭০০০ টনেরও বেশি ভ্যানিলিন প্রয়োজনের অতিরিক্ত উৎপাদন হয়েছিল।

যোয়ানা স্যাডলার, যিনি এই গবেষণাপত্রের অন্যতম প্রধান লেখক ও এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অফ বায়োলজিক্যাল সায়ন্সের একজন বিজ্ঞানী, বলেন যে “প্লাষ্টিকজাত বর্জ্যকে জৈবিক পদ্ধতির মাধ্যমে মূল্যবান শিল্প রাসায়নিকে পরিণত করার এটি সর্বপ্রথম উদাহরণ এবং এই পদ্ধতির ফলে অর্থনীতিতে দারুন ইতিবাচক প্রভাব পড়বে। আমাদের গবেষণা থেকে প্রাপ্ত ফলাফল বিশ্বব্যাপী প্লাস্টিকের স্থায়িত্বের ক্ষেত্রে একটা বড় প্রভাব ফেলবে এবং এই ধরনের জৈবিক পদ্ধতি ব্যবহারের মাধ্যমে বাস্তবের বিভিন্ন জটিল সমস্যাগুলির মোকাবিলা করাও সম্ভব হবে।”

তবে একটা বিষয়ে নিঃসন্দেহ হওয়াই যায় যে এই গবেষণার ফলে ভ্যানিলিনের শিল্পোৎপাদন বহুলাংশে বৃদ্ধি পাবে।

প্লাস্টিক দূষণ গোটা পৃথিবীকে সমস্যার মুখে ফেলছে, এর থেকে মুক্তি পাবার জন্য প্রচুর বিজ্ঞানী গবেষক যেভাবে নিরন্তর গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছেন, তার থেকে একটা বিষয় স্পষ্ট যে এই গুরুতর সমস্যার সমাধান মানুষের হাতে আসতে খুব বেশি দিন আর বাকি নেই।

তথ্যসূত্রঃ

https://www.sciencedaily.com/releases/2021/06/210610135752.htm

Joanna C. Sadler, Stephen Wallace. Microbial synthesis of vanillin from waste poly (ethylene terephthalate). Green Chemistry, 2021; DOI: 10.1039/D1GC00931A

 ——————————————–

~কলমে এলেবেলে দেবারুন~

এলেবেলের দলবল

► লেখা ভাল লাগলে অবশ্যই লাইক করুন, কমেন্ট করুন, আর সকলের সাথে শেয়ার করে সকলকে পড়ার সুযোগ করে দিন। 

► এলেবেলেকে ফলো করুন। 

 

 

 

 

Leave a Reply

free hit counter
error

লেখা ভালো লেগে থাকলে দয়া করে শেয়ার করবেন।