Rheumatoid arthritis প্রতিরোধে Green Tea এর ভূমিকা

প্রিয়জনদের শেয়ার করুন
199 বার লেখাটি পঠিত হয়েছে ~~~

~ কলমে শুভেন্দু চট্টোপাধ্যায় ~

Rheumatoid arthritis কী?

এই রোগটি একটি অতিপরিচিত Chronic Inflammatory Joint Disease এবং এই রোগটি বংশগতির মাধ্যমে এক প্রজন্ম থেকে আরেক প্রজন্মের মধ্যে সঞ্চারিত হয়। আবার বিভিন্ন পরিবেশগত প্রভাবের ফলে এই রোগটির সৃষ্টি হতে পারে। Rheumatoid arthritis [RA]-এ Type-III Hypersensitivity Reaction এবং CD4-T-cell -এর সক্রিয়করন ঘটে; যার ফলে Inflammatory cytokines যেমন IL-6,1 এবং Tumor Necrosis Factor [TNF] -এর নিঃসরণ ঘটে। এবার এই সক্রিয় CD4-T-Cell Rheumatoid Factor [RF] Antibodies-কে সক্রিয় করে তোলে এবং এর সাথে Anticyclic Citrullinated Peptide [Anti-CCP] Antibodies-কে সক্রিয় করে তোলে যার ফলে Immune Complexes তৈরি হয়। এইসময় Acute Phase Proteins যেমন C-Reactive Proteins [CRP] প্রচুর মাত্রায় তৈরি হয় এবং এটি inflammatory process-এ অংশগ্রহণ করে এবং এর পাশাপাশি এটি Immune complexes-এর উপর অবস্থিত antibodies এর সাথে Complements-এর স্থিতিকরনে সাহায্য করে। এই সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটির ফলে আমাদের হাত ও পায়ের সন্ধি (Joints)-সমূহ ফুলে ওঠে অর্থাৎ ওইসব স্থানে প্রদাহ (Inflammation) হয়।


Rheumatoid arthritis এর Pathophysiology

Rheumatoid arthritis মূলত চার রকমের ক্ষতিকর Pathological conditions নিয়ে গঠিত। এগুলো হল:

  • Synovial Inflammation এবং Synovial Hyperplasia
  • Autoantibodies -এর উৎপাদন
  • Cartilage -এর Damage
  • Bone -এর Destruction

আমাদের cellular এবং পরিবেশগত কারণ (environmental factors) -এর পারস্পরিক ক্রিয়ার ফলে আমাদের শরীরে একটি Autoimmune response ঘটে থাকে, যার ফলে এই রোগটির বিস্তার লাভ হয়ে থাকে। অর্থাৎ Rheumatoid arthritis হল একটি Autoimmune Disorder। কিছু Genetic factors এই রোগটির জন্য দায়ী হয়ে থাকে‌। কিছু HLA gene যেমন一 DRB1*01, DRB1*04, DRB1*13 এবং DRB1*15 এবং কিছু Non HLA gene যেমন一 PTPN22, IL23R, TRAF1, CTLA4, IRF5, STAT4, CCR6, PADI4 এই রোগটির বংশগতীয় বিস্তারের জন্য দায়ী। 

আমাদের এই Rheumatoid arthritis হল একটি Autoimmune disorder এবং এখানে আমাদের অনাক্রম্যতন্ত্র বা Immune system-এর একটি বিশেষ গুরুত্ব আছে রোগটির বিস্তারে। আমাদের Immune system এই রোগটির বিস্তারের সময় আমাদের অনাক্রম্যতন্ত্র বা Immune system-এ উপস্থিত T cells সমূহকে সক্রিয় করে দেয় অর্থাৎ Immune System আমাদের Cellular বা Molecular Level-এ একটি উদ্দীপনার সৃষ্টি করে, এবং যেটি উৎপন্ন হয় যখন আমাদের Immune system এর Local dendritic cells সমূহ কিছু বিশেষ Factors-দের সাথে interaction করে এবং সেইসব বিশেষ Factors সমূহ-এর expression বৃদ্ধি করে। এইসব Factors-গুলো হল一 cytokines, HLA class II molecules, এবং co-stimulatory molecules। এই সমস্ত Factors-সমূহ আমাদের T cells-সমূহের Proliferation এবং Activation-এ সাহায্য করে থাকে। এই Activated T cells-সমূহ আমাদের B cells-সমূহকে সক্রিয় করে তোলে এবং এর পাশাপাশি Macrophages সমূহ সক্রিয় হয়ে ওঠে। এই সক্রিয় Macrophages-সমূহ কিছু ক্ষতিকর Cytokines যেমন-TNF-α এবং interleukin-1, 6, 12,15,18,23 কে সক্রিয় করে তোলে; এর ফলে আমাদের সন্ধি-সমূহের Synovial fluid নষ্ট হয়ে যায় এবং এই Condition-কে চিকিৎসা বিজ্ঞানের পরিভাষায় বলা হয় Synovitis। এছাড়াও এই Macrophages-সমূহ Metalloproteinases নামক একটি Matrix degrading enzyme-কে নিঃসরন করে এবং Phagocytosis ও Antigen presentation-এর প্রক্রিয়াকে সক্রিয় করে দেয়; এর ফলশ্রুতিতে আমাদের সন্ধির Cartilage সমূহ নষ্ট হয়ে যায় এবং ওইসব স্থানে প্রদাহর সৃষ্টি হয় এবং স্থানটি ফুলে ওঠে। Cytokines ছাড়াও আমাদের Reactive Oxygen এবং Nitrogen Species [ROS এবং RNS]-সমূহ Oxidative stress-এর সৃষ্টি করে এবং এই Oxidative stress-এর ফলে আমাদের সন্ধি-সমূহে উপস্থিত cartilage নষ্ট হয়ে যায়। এইভাবে Rheumatoid arthritis -এর বিস্তার আমাদের শরীরে হয়ে থাকে।

Green Tea

চা হল একটি অতিজনপ্রিয় পানীয় এই গোটা বিশ্বে। প্রতিদিন সকালে এক কাপ চা না পেলে আমাদের দিন শুরু হয়না। চা পান করার পর আমাদের মনে ও প্রাণে কাজকর্ম করার উদ্যম চলে আসে। তাই চা একটি অতিগুরুত্বপুর্ন পানীয়। আমাদের বিশ্বের প্রায় বিভিন্ন স্থানে Camellia sinensis গাছের পাতা থেকে উৎপন্ন Green Tea, Black Tea এবং Oolong Tea গ্রহণ করা হয়। কিন্তু বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে Black Tea এবং Oolong Tea-এর তুলনায় Green Tea আমাদের শরীরকে বিভিন্ন রোগব্যাধির হাত থেকে রক্ষা করে আমাদের শরীরকে সুস্থ ও স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে। 

Green Tea এর উপাদান সমূহ

Green Tea-এর মধ্যে বিভিন্ন রকমের Amino acids যেমন一 glutamic acid, tryptophan, glycine, serine, aspartic acid, tyrosine, valine, leucine, threonine, arginine, এবং lysine, Carbohydrates যেমন一 cellulose, pectins, glucose, fructose, এবং sucrose, কিছু প্রয়োজনীয় Minerals যেমন一 calcium, magnesium, chromium,manganese, iron, copper, zinc, molybdenum, selenium, sodium, phosphorus, cobalt, strontium, nickel, potassium, fluorine, এবং aluminum এবং কিছু পরিমাণ Lipids যেমন一 linoleic এবং alfa-linolenic acids, sterols stigmasterol, থাকে। এছাড়া Green Tea-তে কিছু Vitamins যেমন一 Vitamin-B,C এবং E থাকে। Green Tea-এর মধ্যে Chlorophyll এবং Carotenoid নামক Pigments উপস্থিত থাকে। এছাড়াও Green Tea-তে থাকে কিছু Volatile compounds যেমন一 aldehydes, alcohols, esters, lactones, hydrocarbons।

এছাড়াও Green Tea-তে প্রচুর পরিমাণে Polyphenols উপস্থিত থাকে। এই Polyphenols এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল一 flavanols, flavandiols, flavonoids, এবং phenolic acid। Green Tea-এর মধ্যে উপস্থিত বেশিরভাগ Polyphenols হল Flavonols, যেটি Catechins নামে পরিচিত। এই Catechins Black Tea এবং Oolong tea-এর থেকে Green Tea-তে সবথেকে বেশি পরিমাণে থাকে। Green Teaতে প্রধানত ৪ রকমের Catechins থাকে। সেগুলি হল一 epicatechin, epigallocatechin, epicatechin-3-gallate, এবং EGCG‌।

 

 

Green Tea এর মধ্যে উপস্থিত Epigallocatechin-3-Gallate (EGCG) এর ভুমিকা Rheumatoid arthritis প্রতিরোধে

Epigallocatechin-3-Gallate [EGCG] হল epigallocatechin এবং gallic acid-এর এস্টারিকৃত রূপ। এই Epigallocatechin-3-Gallate হল Green Tea-এর প্রধান Bio active component। এই Epigallocatechin-3-Gallate [EGCG] বিভিন্নভাবে আমাদের এই Rheumatoid arthritis-কে প্রতিরোধ করতে সক্ষম। এই পদ্ধতিগুলো হল一

  • Green Tea-এর মধ্যে উপস্থিত এই Epigallocatechin-3-Gallate বা EGCG আমাদের শরীরে Interleukin-1β কর্তৃক সৃষ্ট Inflammatory response-কে প্রতিরোধ করে দেয়, যা আমাদের শরীরে, বিশেষ করে আমাদের শরীরের বিভিন্ন অস্থিসন্ধী বা joints-সমূহে বিভিন্ন Inflammatory mediators যেমন一 cyclooxygenase 2 (COX-2), Interferon gamma (IFNγ), এবং tumor necrosis factor alpha (TNFα)-এর ক্রিয়াকে অবদমিত করে।
  • EGCG আমাদের অর্থাৎ যারা Rheumatoid arthritis-এ আক্রান্ত তাদের রক্তের Serum এবং অস্থিসন্ধী বা Joints সমূহের মধ্যে total immunoglobulins (IgG) and type II collagen-specific IgG-এর মাত্রা কমিয়ে দেয়।
  • গবেষণায় দেখা গেছে EGCG IL-1β-induced inducible nitric oxide synthase (iNOS) এবং COX-2 expression এবং এদের ক্রিয়াকে অবদমিত করে আমাদের অর্থাৎ Rheumatoid arthritis এ আক্রান্ত ব্যাক্তিদের cartilage সমূহকে রক্ষা করে। EGCG এই ক্রিয়ার ফলে Nitric Oxide [NO] এবং Prostaglandins DE [PGE2]-এর উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায় আমাদের Cartilage এ।
  • EGCG আমাদের শরীরে Inflammatory component এবং Arthritic component সমূহ যেমন一 cytokines, chemokines, MMPs, aggrecanase, ROS, NO, COX-2, এবং PGE2 এর expression-কে অবদমিত করে এবং আমাদের শরীরের বিভিন্ন অস্থিসন্ধী বা Joints সমূহকে এইসমস্ত components এর ক্ষতিকর প্রভাব যেমন一 inflammation এর হাত থেকে রক্ষা করে।
  • EGCG একটি শক্তিশালী Antioxidant রূপে কাজ করে। এটি Rheumatoid arthritis এ আক্রান্ত ব্যাক্তিদের joints এর স্থান থেকে superoxide anion, hydroxyl radical এবং অন্যান্য reactive oxygen species (ROS)-কে বহিষ্কার করে [Free Radical Scavenging]। এই ROS Rheumatoid arthritis এর Pathogenesis-এ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। একটি গবেষণায় দেখা গেছে একজন Rheumatoid arthritis-এ আক্রান্ত ব্যাক্তির Synovial fluid-এ প্রায় 90% ROS উপস্থিত ছিল [Nanjo F et al এবং Kurien BT et al.]। 
  • যখন Rheumatoid arthritis-এ আক্রান্ত ব্যাক্তিদের joint সমূহে ROS এর মাত্রা বৃদ্ধি পায় তখন সেই ROS সমূহকে দূরীভূত করার জন্য catalase, superoxide dismutase, এবং glutathione peroxidase-এর ক্রিয়া বৃদ্ধি পায়; এরা সবাই Antioxidant Enzymes এবং এদেরকে নিয়েই গড়ে ওঠে Antioxidant Defense System।

এভাবে Green Tea-এর মধ্যে উপস্থিত Epigallocatechin-3-Gallate (EGCG) Rheumatoid arthritis-কে প্রতিরোধ করে থাকে। যারা Rheumatoid arthritis এ আক্রান্ত তারা তাদের প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় Green Tea কে রাখতে পারেন। আপনারা যদি প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে একটু শরীরচর্চা করার পর Fresh হয়ে এককাপ Green Tea পান করেন তাহলে আপনাদের শরীরটা Fresh হয়ে উঠবে এবং আপনারা Rheumatoid arthritis এর বিভিন্ন complications থেকে দূরে থাকতে পারবেন এবং আপনাদের Joints সমূহ মুক্তমুলক এবং বিভিন্ন Inflammatory cytokines-এর ক্ষয়ের হাত থেকে রক্ষা পাবে এবং আপনাদের joints সমূহের স্বাভাবিক ক্রিয়া বৃদ্ধি পাবে। এখন বাজারে বিভিন্ন company-এর Green Tea পাওয়া যায়। আপনারা আপনাদের চিকিৎসক বা পথ্যবিশারদদের সাথে আলোচনা করে Green Tea ব্যবহার করতে পারবেন। 

————————

লেখক পরিচিতি: হালিশহর নিবাসী শুভেন্দু চট্টোপাধ্যায় কাঁচরাপাড়া কলেজ থেকে পুষ্টিবিজ্ঞান বিষয়ে স্নাতক উত্তীর্ণ হয়ে বর্তমানে কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয়ে উক্ত বিষয়ে স্নাতকোত্তর স্তরে পাঠরত। লেখক পড়াশোনার পাশাপাশি বিভিন্ন পত্র-পত্রিকা ও অনলাইন ম্যাগাজ়িনে নিয়মিত লেখালেখি করার কাজে নিযুক্ত। 

 

Leave a Reply

free hit counter
error

লেখা ভালো লেগে থাকলে দয়া করে শেয়ার করবেন।